মঙ্গলবার, ২০শে অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ ৪ঠা কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

টটেনহামে ফিরে যাচ্ছেন গ্যারেথ বেল

news-image

স্পোর্টস ডেস্ক : পুরোনো ক্লাব টটেনহামে ফিরে যাচ্ছেন গ্যারেথ বেল। খবরটি আজ বিকেল পর্যন্ত আনুষ্ঠানিক রূপ না পেলেও প্রায় পুরো ফুটবল বিশ্ব জেনে গিয়েছে রিয়াল মাদ্রিদ ছেড়ে টটেনহামে নাম লেখাতে যাচ্ছেন ওয়েলশ তারকা। এরই মধ্যে তাঁর ১১ নম্বর জার্সিটা মার্কো আসেনসিওকে আনুষ্ঠানিকভাবে দিয়ে দিয়েছে রিয়াল। ক্লাবে মূল স্কোয়াডের ২৫ নম্বর জার্সিটা বেলের নামে লিখে রাখা হয়েছে ভদ্রতা করে। একটু আগে সে আনুষ্ঠানিকতাও শেষ হলো, টটেনহাম ও রিয়াল দুই ক্লাবই নিশ্চিত করেছে এক মৌসুমের জন্য ধারে লন্ডনে যাচ্ছেন বেল।

এটা সবারই জানা কোচ জিনেদিন জিদানের ‘গুড বুকে’ না থাকাতেই রিয়ালে কপাল পুড়েছে ওয়েলশ তারকার। তবে জিদান সব সময়ই পেশাদার কোচের মতো বলে এসেছেন, বেলের সঙ্গে কোনো ব্যক্তিগত সমস্যা নেই তাঁর। নতুন মৌসুম শুরুর আগে আজ আরও একবার বললেন বেলের সঙ্গে তাঁর সমস্যা না থাকার কথা।

আগামীকাল রবিবার রিয়াল সোসিয়েদাদের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে লা লিগা শুরু করতে যাচ্ছে রিয়াল। এর আগে আজ অনলাইনে দল নিয়ে গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলেছেন জিদান। সেখানেই উঠে এসেছিল বেলের দল ছাড়ার প্রসঙ্গ। বিষয়টি চূড়ান্ত না হলেও আলোচনাধীন বলে জানিয়েছেন জিদান, ‘এটি জটিল একটি পরিস্থিতি। আলোচনা চলছে। সুতরাং এই বিষয়ে কথা বলা ঠিক হবে না।’

এর পরেই বেলের সঙ্গে তাঁর ঝামেলা নেই বলে জানিয়েছেন জিদান, ‘তাঁর (বেল) সঙ্গে আমার কখনোই কোনো সমস্যা ছিল না এবং ক্লাবের হয়ে সে যা অর্জন করেছেন তা কেউ অস্বীকার করতে পারবেন না। যা ঘটছে, তা ফুটবলে হয়ে থাকে। যদিও তাঁর নতুন চুক্তির বিষয়টি এখনো চূড়ান্ত নয়। যদি সে ক্লাব পরিবর্তন করে থাকে, আমি শুধু তাঁর জন্য শুভ কামনা জানাতে পারি।’

২০১৩ সালে দল বদলের বাজারে রেকর্ড গড়ে বেলকে রিয়ালে এনেছিলেন ক্লাবটির সভাপতি ফ্লোরেন্তিনো পেরেজ। কিন্তু শেষ মৌসুমের পুরোটা বেঞ্চেই বসে কাটাতে হয়েছে বেলকে। মৌসুমের শুরুতেই বেলকে ছেড়ে দিতে চেয়েছিলেন জিদান। এমনও বলেছিলেন, ‘যদি কাল ক্লাব ছাড়ে তো আরও ভালো।’ কিন্তু সেটা হয়নি, বেলকে নিয়েই মৌসুম কাটাতে হয়েছে। শুরুতে টানা কয়েক ম্যাচ নিয়মিত একাদশে ছিলেনও বেল। কিন্তু মৌসুম যত এগিয়েছে জিদান ও বেলের মধ্যে দূরত্ব তত বেড়েছে।

গত মৌসুমে সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে রিয়ালের ২০ ম্যাচে মাঠে নেমেছিলেন ৩১ বছর বয়সী এ উইঙ্গার। সব মিলিয়ে মাঠে ছিলেন মোট ১২৬০ মিনিট। তিন গোল করানোর পাশাপাশি সতীর্থদের দিয়ে করিয়েছেন দুই গোল। তাই এখন বেলকে ছেড়ে দিতে পারলেই যেন বাঁচে রিয়াল। আর তাঁকে পাওয়ার ব্যাপারে আশাবাদী টটেনহামও।

তবে বেলের যে আকাশচুম্বী বেতন, তা স্পার্স দিতে পারবে না, মোটামুটি জানা কথা। স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যম ‘এএস’ জানিয়েছে, রিয়ালে বেল যে বেতন পান (প্রতি মৌসুমে সব মিলিয়ে ২০ মিলিয়ন ইউরো) সেটা ভাগাভাগি হবে। তবে বিষয়টি এখনো চূড়ান্ত নয়। এমনও খবর বেরিয়েছে, বোনাস দেবে রিয়াল, বেতন দেবে টটেনহাম।

এ জাতীয় আরও খবর

সিলেটে এমসি কলেজে গণধর্ষণ : আদালতে বিচারিক কমিটির প্রতিবেদন

যাচাই-বাছাই শেষে বাদ পড়বে ৫ থেকে ৭ ভাগ মুক্তিযোদ্ধা

বিএনপির মতো ব্যর্থ বিরোধীদল আর কেউ দেখেনি : কাদের

অভ্যন্তরীণ বিমানবন্দরগুলোতে পর্যাপ্ত লাইটিংয়ের ব্যবস্থা করার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

রমেকে নমুনা পরীক্ষায় আরও ৯৪ আক্রান্ত ব্যক্তি শনাক্ত

অসুস্থতার কারণে পেছাল খালেদা জিয়ার নাইকো মামলায় চার্জগঠনের শুনানি

আন্দোলনে অংশ নেওয়া ছাত্র ইউনিয়ন কর্মী ধর্ষণ মামলায় গ্রেপ্তার

এবার আলুর দাম ৩৫ টাকা করল সরকার

সৌদি আরবে ‘ফ্রি ভিসা’র ভয়াবহ ফাঁদ

রংপুরে আলুর দাম বাড়াচ্ছে মজুতদাররা

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বিভিন্ন প্রকল্পের উপকারভোগীদের মাঝে ঘরের চাবি ও ঋণ বিতরণ

এসআই আকবর বিদেশ পালিয়ে গেলেও তাকে ফিরিয়ে আনা হবে : পররাষ্ট্রমন্ত্রী