বৃহস্পতিবার, ২৮শে মে, ২০২০ ইং ১৪ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

দেশের ৯০% হাসপাতালে ভেন্টিলেটর-অক্সিজেন নেই : রিজভী

news-image

নিজস্ব প্রতিবেদক : দেশের ৯০ শতাংশ হাসপাতালে ভেন্টিলেটর-অক্সিজেন নেই বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। তিনি বলেন, ‘সরকার করোনাভাইরাস মহামারিতে মানুষকে বাঁচাতে বা সচেতনতা করতে কোনো পদক্ষেপ নেয়নি।’

আজ শুক্রবার সকালে মুন্সীগঞ্জের সিরাজদীখান উপজেলার নিমতলী এলাকায় ও শ্রীনগরের বীরতারা ইউনিয়নে ত্রাণ বিতরণের সময় এসব কথা বলেন রিজভী।

তিনি বলেন, ‘সরকার কয়েকটি ফ্লাইওভার তৈরি করে উন্নয়নে ভাসিয়ে দিচ্ছেন বলে প্রচার করছে। হাসপাতাল নেই কেন, ভেন্টিলেটর নেই কেন। করোনা রোগীদের দরকার ভেন্টিলেটর, অক্সিজেন। দেশের ৯০ শতাংশ হাসপাতালে এ ব্যবস্থা নেই। তাহলে মানুষ বাঁচবে না মরবে। তাহলে তো মানুষ মরার কথা। সরকার মানুষ বাঁচানোর কোনো কাজ করেনি।’

রিজভী বলেন, ‘সচেতনতা ও সাবধানতা থাকতে হবে করোনা মোকাবিলায়। কিন্তু অত্যন্ত দুঃখের, সরকার কোনো পদক্ষেপ নেয়নি। উল্টো লকডাউন খুলে দিয়েছে। একবার বলেন লকডাউন শিথিল করা হয়েছে, আবার বলেন লকডাউন চলবে। তারা মানুষকে বিভ্রান্তির মধ্যে ফেলছেন।’

প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশে বিএনপির এই নেতা বলেন, ‘হাসপাতাল করেননি। মানুষ বাঁচানোর জন্য উন্নত যন্ত্রপাতি আনেননি। উন্নত স্কুল-কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয় করেননি। যার মধ্য দিয়ে প্রকৃত উন্নয়ন হবে, তা আপনারা করেননি। ভয়ঙ্কর পরিস্থিতি তৈরি করে মানুষ বাঁচুক-মরুক তাতে সরকারের কোনো দায়িত্ব নেই।’

সরকার করোনা মোকাবিলায় ‘ব্যর্থ’ উল্লেখ করে রিজভী বলেন, ‘গরিব মানুষকে সহায়তা করতে যাতে না হয়-সে জন্য মানুষকে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দিয়েছে। সরকারি ত্রাণ আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান-মেম্বর চুরি করছে। গরিব-অসহায় মানুষকে ৩-৪ মাস খাওয়ানোর ব্যবস্থা করতে পারত। সেটা না করে লকডাউন খুলে দিয়েছে। ফলে প্রতিদিনই আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে।’