শুক্রবার, ৩রা এপ্রিল, ২০২০ ইং ২০শে চৈত্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

১ মার্চ যুক্তরাষ্ট্রে রপ্তানি হচ্ছে ২৬ হাজার স্মার্টফোন : প্রতিমন্ত্রী পলক

পঞ্চগড় প্রতিনিধি : ‘গত তিন বছরে দেশে ১১টি মেনুফ্যাকচারিং এবং অ্যাসেম্বলিং প্লান্ট স্থাপিত হয়েছে। ১ মার্চ বাংলাদেশে তৈরি ওয়ালটনের ২৬ হাজার স্মার্টফোন যুক্তরাষ্ট্রে রপ্তানি করা হচ্ছে।’

আজ শনিবার (২৯ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে পঞ্চগড় সদর উপজেলার বিলুপ্ত গাড়াতি ছিটমহলের মফিজার রহমান কলেজে ডিজিটাল সার্ভিস ইমপ্লয়েন্টমেন্ট অ্যান্ড ট্রেনিং সেন্টারের ভিত্তি স্থাপন অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন ডাক টেলিযোগাযোগ ও তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

পলক বলেন, স্মার্টফোন, ল্যাপটপ ও স্মার্ট টেলিভিশন এখন দেশেই তৈরি করে রপ্তানির উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। প্রতিবছর প্রায় চার কোটি মোবাইল ও ১০ লাখ ল্যাপটপ আমাদের আমদানি করতে হয়। এখন আমরা চেষ্টা করছি দেশেই তা তৈরি করে দেশের চাহিদা মিটিয়ে বিদেশে রপ্তানি করতে।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, গত ১১ বছর আগে দেশে ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সংখ্যা ছিল ৫৬ লাখ, এখন তা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১০ কোটিতে। এই প্রশিক্ষণ কেন্দ্র থেকে প্রত্যন্ত গ্রামের মানুষ বিশ্বের সব প্রান্তে যোগাযোগ স্থাপন করতে পারবে। এখান থেকেই ভালো বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়া যাবে। যুবকরা প্রশিক্ষণ নিয়ে দক্ষতা অর্জন করে আইটি শিল্পে আত্মকর্মসংস্থানের সুযোগ পাবে।

যুবকদের সামনে এগিয়ে যাওয়ার পথে তিনটি বাধার কথা উল্লেখ করেন প্রতিমন্ত্রী বলেন, মাদক, সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ থেকে যুবকদের দূরে রাখতে হবে এবং সমাজের প্রতিটি স্তর থেকে দুর্নীতি দূর করতে হবে। তিনি প্রযুক্তির ভালো দিক ব্যবহার করে প্রযুক্তির শক্তিতে তারুণ্যের শক্তিকে সম্পৃক্ত করে ডিজিটাল বাংলাদেশ করে তোলার আহ্বান জানান।

অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে পঞ্চগড়-১ আসনের সংসদ সদস্য মজাহারুল হক প্রধান, জেলা প্রশাসক সাবিনা ইয়াসমিন ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আনোয়ার সাদাত সম্রাটসহ বিলুপ্ত ছিটমহলের অধিবাসী ও বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।

দীর্ঘ ৬৮ বছর পিছিয়ে থাকা বিলুপ্ত ছিটমহলবাসীকে আইসিটি বিষয়ে প্রশিক্ষণ ও কর্মসংস্থানের জন্য ৮৬ লাখ টাকা ব্যয়ে মফিজার রহমান কলেজ চত্বরে দ্বিতল ডিজিটাল সার্ভিস ইমপ্লয়েন্টমেন্ট অ্যান্ড ট্রেনিং সেন্টার নির্মিত হচ্ছে।