সোমবার, ১০ই আগস্ট, ২০২০ ইং ২৬শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

তেঁতুলিয়া কাঁপছে সর্বনিম্ন তাপমাত্রায়

news-image

তেঁতুলিয়া (পঞ্চগড়) প্রতিনিধি : দেশের অন্যান্য জায়গার তুলনায় এবার আগভাগেই শীত এসেছে উত্তরের জেলা পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায়। এক মাস ধরে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা বিরাজ করছে উপজেলাটিতে। আবহাওয়া অধিদপ্তর বলছে, গত কয়েক দিন ধরে তেঁতুলিয়ায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৯-১০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে ওঠানামা করছে। অঞ্চলটি হিমালয়-কাঞ্চনজঙ্ঘার পাশে হওয়ায় এখানে শীতের প্রকোপ বরাবরই বেশি।

এ অঞ্চলে ভোরের দিকে ঘন কুয়াশা পড়ে এবং থাকে বেলা ১১টা পর্যন্ত। বিকাল গড়ালেই শীতল বাতাসের সঙ্গে বাড়তে থাকে ঠাণ্ডা। সন্ধ্যার পর বাজারগুলোতে কমতে থাকে জনকোলাহল। নিম্নবিত্তরা শীত নিবারণে বাড়ির উঠোনে খড়কুটো জ্বালিয়ে বসে থাকছেন তার পাশে। অনেকে আবার ভিড় করছেন ফুটপাতের দোকানগুলোতে। যে যার সাধ্যের মধ্যে কিনছেন গরম কাপড়। তবে তীব্র শীতে অসহায়, হতদরিদ্র ও ছিন্নমূল মানুষের দুর্ভোগ চরমে উঠেছে।

শীতের বৈরী আবহাওয়ার কারণে এলাকার দিনমজুর ও শ্রমজীবী মানুষ কাজে যেতে পারছেন না। এদিকে শীতের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বেড়েছে ঠাণ্ডাজনিত অসুখ-বিসুখ। বিশেষ করে সর্দিজ্বর ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে তেঁতুলিয়া হাসপাতালের ইনডোর ও আউটডোরে আসছেন অনেক রোগী, যাদের মধ্যে শিশু ও বৃদ্ধের সংখ্যাই বেশি। তবে সরকারি কিংবা স্বায়ত্তশাসিত কোনো প্রতিষ্ঠানকে এখন পর্যন্ত শীতার্তদের পাশে দাঁড়াতে দেখা যায়নি।

এ বিষয়ে তেঁতুলিয়া আবহাওয়া পর্যবেক্ষক মো. রহিদুল ইসলাম বলেন, গত তিন দিন ধরে ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াসে নেমেছে তাপমাত্রা। শনিবার দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস ছিল তেঁতুলিয়ায়। গত বছর ২২ জানুয়ারি এ অঞ্চলে সর্বনিম্ন ২ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা ছিল, যা ৫০ বছরের মধ্যে রেকর্ড ছিল।

এ জাতীয় আরও খবর

করোনার প্রভাব: রংপুরের যুবক তরুণরা মাঠে নেমেছে ভিন্ন পেশায়

প্রখ্যাত ছড়াকার ও শিশু সাহিত্যিক একেএম শহীদুর রহমান বিশু না ফেরার দেশে চলে গেলেন

সাবমেরিন কেবল মেরামতে ইন্টারনেটে গতি ফিরেছে

সুন্দরবনে মধু ও মোমের উৎপাদন বেড়েছে

আলাউদ্দিন আলীর মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক

যশোর-ঝিনাইদহ মহাসড়ক ফোরলেন হচ্ছে, ঋণ দেবে বিশ্বব্যাংক

দেশের অর্থনীতি ঘুরে দাঁড়াচ্ছে

রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখতে জাম্বুরা খা্ন

করোনায় যেভাবে ফুসফুসের ব্যায়াম করবেন

বিশ্বে করোনা শনাক্তের সংখ্যা ২ কোটি ছাড়াল

করোনা আক্রান্ত সবচেয়ে বেশি রাজধানীতে, কম মেহেরেপুরে

করোনায় বিশ্বে প্রাণ হারিয়েছে ৭ লাখ ২৯ হাজার